সম্পাদকীয়

অভীক দত্ত
সময় ভাল না। যেটা ভাবা হয়েছিল সেটা হল না। ভাবা ছিল যত বিজ্ঞানের অগ্রগতি হবে, ধর্ম সম্প্রদায় ইত্যাদির নামে ভেদাভেদ হানাহানি কমতে থাকবে। মানুষ ধর্মের ভিত্তিতে মানুষকে বিচার করবে না অন্তত।
কিন্তু দেখা গেল সেটা হল না। সময় যত এগোচ্ছে, সোশ্যাল নেটওয়ার্কের সরাসরি যোগাযোগের ভিত্তিতে বিদ্বেষটা আজকাল বড় বেশি চোখে লেগে যাচ্ছে। তার সাথে শুরু হয়েছে মানুষকে ধর্মের ভিত্তিতে খুন করা। সাম্প্রতিক কালে দাদরি কান্ড আরও একবার প্রমাণ করে দিল সময়টা বড় মধুর যাচ্ছে না। একই সাথে প্রতিবেশী রাষ্ট্র বাংলাদেশেও শুরু হয়েছে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা। আসলে এই ধর্মব্যবসায়ীরা খুব ভাল করেই জানে, একদিকে যদি গরম করা না যায় তাহলে ওপরদিক সহজে গরম হবে না। মানুষকে ধর্মের ভিত্তিতে খ্যাপানো বড় সহজ হয়ে গেছে আজকাল। সাধে কি রবীন্দ্রনাথ লিখে গেছিলেন “ভারতের এমনি কপাল যে, এখানে হিন্দুমুসলমানের মত দুই জাত একত্র হয়েছে- ধর্মতে হিন্দুর বাঁধা প্রবল নয়, আচারে প্রবল, আচারে মুসলমানের বাঁধা প্রবল নয়, ধর্মমতে প্রবল। একপক্ষের যে দিকে দ্বার খোলা, অন্য পক্ষের সে দিকে দ্বার রুদ্ধ। এরা কী করে মিলবে!”
এই ২০১৫ তে এসে যখন মঙ্গলে মানুষ উপনিবেশ করার কথা ভাবছে তখন উৎসব সংখ্যার সম্পাদকীয়তে এ নিয়ে লিখতে হবে কল্পনাতেও আসে নি, কিন্তু ভাবতে হচ্ছে আমাদের। আমরা যতই ডিজিট্যাল বলে ছাগলের তৃতীয় সন্তানের মত নাচি, যতদিন না আমাদের দেশে ধর্মীয় সংকীর্ণতা দূর হচ্ছে ততদিন আমাদের দেশ কোনভাবেই কোন কিছু করেই এগোতে পারবে না।
মানুষের মনের অন্ধকার, মনের কালো দূর হোক, এই উৎসবে এর বেশি কিছু চাওয়ার নেই সত্যিই...
আদরে থাকুন।

অভীক দত্ত
সম্পাদক
আদরের নৌকা
১৫.১০.২০১৫

আপনার মতামত জানান