অপরাহ্ন পরবর্তী

কিঙ্কিণী বন্দ্যোপাধ্যায়

রাস্তার সব আলো নিভিয়ে শার্সি খুলে
জ্বেলে দিলে শুধু ম্লান নীল ভয়
একটাই চাদর আছে, সাদা চাদর
তা দিয়ে কি অন্ধকারের হাতে হাত রাখা যায়?


আহত পেঁচার স্বরে প্রত্যেক স্বজনের মৃত্যুমুখ মনে পড়ে,
নতমুখ জাতিস্মরের ভীড় ঠেলেও জানি
এই পথে জন্ম এসেছিল
এই পথে ভেসেছিল জীবন
এই পথে ক্ষয় মিশে যাবে
পরিশিষ্টে ভষ্ম ও দহন


তবে তাই হোক, উৎসমুখে যাই তবে
দগ্ধ নাভিক্ষত ছুঁয়ে বাদামী বনভূমি,
কখনও বা প্রাচীন চারণক্ষেত্রের প্রান্তে রুটি-জল খুলে বসা।
এই মাটি জানে সব খননের ইতিহাস
সব ক্ষরণের ভূমিকা এই জমি জানে।

আপনার মতামত জানান