সম্পাদকীয়

অভীক দত্ত
বসন্ত নস্টালজিয়া আনে। বসন্ত মনে পড়িয়ে দেয় সব কিছু।
এই কিছুদিন আগেও মাঝরাত্তিরে সুপ্রভাতদা ফোন করে বলত “অভীক, তুই আদরের নৌকা বন্ধ করে দিচ্ছিস কেন? আদরের নৌকাটা নিয়ে আমাদের ভাবতে হবে, আমরা কী কী করতে পারি, তুই বুঝতে পারছিস আমি কী বলছি?”
ফোনের ওপাশ থেকে সুপ্রভাতদার কথাগুলো আমাকে সত্যিই ভাবাত। সত্যিই তো আমাদের লড়াইটা, যে লড়াইটা আমরা সেই কবে থেকে লড়ে আসছি, তা কি এভাবে শেষ হয়ে যেতে পারে? আদরের নৌকা তো আসলে আমাদের সেই আশ্রয়, যে আমাদের সেই জায়গাটা দেবে যেখান থেকে আমরা আমাদের কথা বলতে পারি। মনে পড়ে যেত সেই নিদ্রাহীন রাতগুলো যখন সংখ্যাগুলো বের করেছি। পাঠক সংখ্যা কীভাবে বাড়ানো যায় সেটা নিয়ে ভেবেছি।
এই কঠিন সময়ে, যখন বাংলা ভাষা বিপন্ন থেকে বিপন্নতর হয়ে উঠছে, ঠিক সেই সময় ভাষা চর্চা বন্ধ করে দেবার কথা কোন ভাবেই ভাবা যায় না।
সুপ্রভাতদার কথাগুলো বারে বারেই তাড়িয়ে বেরিয়েছে আমাকে,আদরের প্রতিটা সংখ্যা যাকে ছাড়া ভাবতে পারি নি, এবার সেই নেই।
ভালো থেকো সুপ্রভাতদা, আমরা থামছি না, জানি তুমি আমাদের সঙ্গে আছো।

অভীক দত্ত
মার্চ, ২০১৮

আপনার মতামত জানান