সম্মুখবর্তী

পৃথা রায় চৌধুরী
দেখো কতো বিরক্ত তুমি
দুই ভ্রূর মাঝ বরাবর
টানটান শিরদাঁড়া
সটান উঠে গেছে বিরক্তিদাগ।

এই যে তুমি ভালোবাসো,
বা ভালবেসেছিলে,
কেমন যেন গল্প শেষের
নটেগাছটি হয়ে গেছে।

যেখানে নিজের মুখোশের ভয়
নিজেই পাও,
সেখানে খুঁজে চলো
সে যেন কোন দোষে দোষী!

সিঁড়ির জেদি ধাপে দাঁড়িয়ে
বেশ কষে চেল্লাও
দূর হয়ে যাও সাচ্চা মুখ
নসীবে শুয়েছে তিনটি বলিরেখা।

আরশি দেখে ফেলে
অন্ধকার চক্ষু কোটর;
চেয়ে আছে অখণ্ডচারী প্রতিবিম্ব
... কে?

আপনার মতামত জানান