ওই রঙ চঙে ভালোলাগাগুলো...

রাজর্ষি মজুমদার


ইউজ অ্যান্ড থ্রো বললেই আমার পেন মনে পড়ে। যেন আর কোনো জিনিস মায় মানুষ অবধি ইউজড হতে পারেনা কখনও। আসলে ইস্কুল বয়স হল রঙ। যা একমাত্র হোলির কদিনে সীমাবদ্ধ নয়। তো এহেন সময়ে গম্ভীর রেনল্ডস ডট পেন হাতে নিলে রঙ টুকু হারিয়ে হোমেটাস্কময় হয়ে যেতো সব। তাই আমাদের ইস্কুল জীবনে রিফিল পেন ছেড়ে এই রং বেরঙ্গের পেন গুলোর মজাই আলাদা ছিলো।
বাড়িতে হাজার বকাঝকা। ওগুলোতে লিখলে হাত ব্যাথা করবে, স্পীড কমে যাবে লেখার। কিন্তু আমার বায়না ঐ পেনগুলোর জন্যেই। মনে পড়ে এক সময় অঙ্ক করার ঝোঁক উঠেছিলো খুব। কত্ত পড়াশোনা করি তার পরিমাপ হয়ে রয়ে যেত ফাঁকা পেন গুলো।দেখন দারি আমাদের তৃপ্তি দেয়। আর এই ইউজ অ্যান্ড থ্রো তাকে অন্য মাত্রা দিয়েছিলো।
সব স্কুলের মত আমাদের স্কুলের ও অলিখিত অনেক নিয়ম ছিলো। তার মধ্যে একটা এরকম - যে খারাপ ছেলেরাই পাতি রিফিল পেন গুলোয় লেখে। আর ভালো ছেলেদের ব্যাপার অন্য। তাদের পেন দামী, কলার উঁচু, বুটে গট গট সব্দ হয়।এছাড়াও আমাদের স্কুলের ইংরেজী স্যার ভীষন রাশভারী ছিলেন। অ্যানসার লিখে তাকে দেখাতে গেলে তিনি তার দামী কলম গুলো দিয়ে চেক করতেন। পেন ফাইটিং বলে আমরা এক খেলা খেলতাম। তাতে আমায় প্রায়ই হারতে হতো এই পলকা পেনগুলোর জন্যে। কিন্তু মাঝে মাঝেই শোধ তুলে নিতাম আলপটকা জিতে গিয়ে। আর আমার সস্তার পেন গুলোকে দেখে মনে হত খেটে খাওয়া মানুষগুলোর কথা। যেনো এখানেও এক অন্যরকম শ্রেণী সংগ্রাম।
তবে এখনও ভাবলে আশ্চর্য লাগে যে এই ইউজ অ্যান্ড থ্রো এসে এসব কনসেপ্টই পাল্টে দিয়েছিলো। ' সব্বার জন্যে আনন্দের লেখা ' - এই ছিলো এর অলিখিত মোটো। এর আবিষ্কর্তাকে লেলিনের মর্যাদা দেওয়াই যায়।
এই পেনগুলো আমার কাছে নিছক মোলায়েম কথার মতো নয় বরং এরকম কিছু মুখ যাদের দিকে চেয়েই লেখাটুকু ভেসে যায় এখানে ওখানে।খুঁজে নেয় দরকারী মানুষ, আমি অবচেতনে পাশ ফিরি ঘুমে। যেদিন ঘুম ভেঙ্গে দেখি কালি শেষ হয়েছে সেদিন দোকানে পেনের দাম জিজ্ঞাসা করলে খেয়াল হয় দাম বেড়ে গেছে। এই দাম বাড়ার মাঝখানেই আমি টিনএজ টা কাটিয়ে এলাম।
এরাই বোধ হয় একমাত্র কেউ যে ইউজ হচ্ছে জেনেও ভাল বন্ধু হয়ে থাকে।আসলে ইউজড হবার মধ্যেও যে আনন্দ আছে তা আমি এই পেন গুলোর কাছেই প্রথম শিখি। এই সফট ব্যাপার গুলো তাই আর দুপুরের ঘুমে ব্যাঘাত ঘটায় না। সিগারেট না খেয়েও দিব্বি ফুরিয়ে যাবার লেখা লিখতে থাকি। আর পেন গুলো আঙ্গুল চিপে ধরে। ছেলেবেলার অপমান গুলোয় মলম লাগায়। নীল কালো রঙ্গের।

আপনার মতামত জানান