বারিষ কথা

নির্মাল্য সেনগুপ্ত


আজ মেঘলা দিনের বিলাসিতার জ্বরে
মাতাল আমি, ক্রমশই তাই পথ ভুলেছি ঘরের

বৃষ্টিতে ভিজেছ খুব, পিঠেতে জলের ছিটা লেগে
বুঝেছ কি, কতখানি অভিমান জমেছিল মেঘে

আদর প্রত্যাশা নয়, যদি বলি দুদিনের সাথী
আমিও ভিজব তাই, তোমার আড়ালে বর্ষাতি

তুমি যাকে প্রেম ভাবো, সে নেহাৎই অসতের ছল
তবু ডুবেই যাচ্ছি দ্যাখো, এখনই প্রায় হাঁটুজল

আসলে তো কল্পনা, দ্যাখো ইচ্ছেরও বলিহারি
আমরা সবাই কি আর প্রজাপতি বুকে নিতে পারি...
আমি ও আমার বাড়ি, এ ওর ভিতরে বসে থাকি রোজ
কলকাতা ভেসে যায়, আমাদের ভাসেনা সঙ্কোচ...
গন্তর্ব্যের হদিশ নেই, তবু কি আমার সাথে যাবে
যেখানে বারিষ ও জ্বর জড়িয়ে আছে ওতপ্রোতভাবে

জলের নিষ্ঠুরতা জানে যে মাঝি, তাকে বল ভয় নেই
এ ভবের নদীতে বহুকাল বৃষ্টিপাত হয়নি...

বর্ষা কি প্রেম নয়? পরিসরে হোক না সে ক্ষুদ্র
কবির আদিখ্যেতায় হাসে সারা অরণ্যসমুদ্র...

আপনার মতামত জানান