তিনটি কবিতা

প্রণব বসু রায়
১।
আবহ
আবহ বিষয়ে কথা হোক আজ, কেন না
মেঘের চাতুরীতে ভিজে যাচ্ছে পথ অসময়ে
মানুষের তাই ঘুম পেয়ে যায় খুব অবেলায়
সব ঘরে থাকে ছাতা অথবা রেনকোট ?

যেহেতু বাইরেই থাকি
অনিবার্য ভিজে যাই ঘুমহীন চোখে..।


অকস্মাৎ

অকস্মাৎ ধূলিঝড়ে ঢেকে যায় মুখ, ওড়ে চুল
এলোমেলো হ’য়ে যায় সকল বাঁধন,
ভুলে যাও রন্ধন প্রণালী, কাকে দেবে খেতে...
*
ধান কাটা হ’লো বুঝি মাঠে ? নবান্নের
করো আয়োজন
*
শীত রাতে উষ্ণতা চাই ব’লে
মোমদানে আগুন জ্বালাও...


আমাদের

হাতে রাখি খোলা তরবারি, মাথায় আচ্ছাদ নেই
আমাদের ঘরে জ্বলে নিভু নিভু আলো, সারারাত
পোষ্ট অফিসের দিকে যে সড়ক যায়, পাহারাবিহীন
সেইখানে অবসরে জমা থাকে নিরুচ্চার ঘষা কথামালা
                                            আমাদের
দুঃখগুলি স্ফটিকবিন্দু হয়ে কাচে লেগে থাকে অনায়াসে
আমাদের
খুশিক্ষণ হারিয়েছে দেখি কুয়াশার অনন্ত প্রসারে...

আপনার মতামত জানান