তিনটি কবিতা

অংশুমান
সোনামণি

কত বিষ
      কূটনৈতিক
কুকুরের খাদ্যের দাম বাড়ছে
মোটরবাইক ছাড়া কাম জাগছেনা সে নারীর
এমন সময় কী করা যায় বলোতো সোনা?
মণিকাঞ্চনে
    মালাবার বিরিয়ানী কী ভালো বানায়!
    প্রিন্টার খারাপ বলে ছেলের গায়ে হাত তুলবে?
    চায়ের কাপ নিজে উল্টেছো বলে বলবে টেবিলটা ঢালু?
কত বিষ
     কূটনৈতিক
     অন্ধকার ভিত্তি করে আসছে টাটা সুমো
     তোমায় তুলে নিয়ে যাবে স্বর্গে
     দাঁড়ি



অন্যমনস্ক

হেডফোন নিতে ভুলে গেলেন কবি
গোটা রাস্তা
কিছুক্ষণেই ফেসবুক আর হোয়াট্স্ অ্যাপ নেমে গেলেন বাস থেকে
একটা যৌনশিক্ষার ইন্সটিটিউট
একটা ফাস্ট ফুডের দোকান
কাঠের কারখানা
গঙ্গাকল
খবরের কাগজের অফিস
একটা পুরোনো বুড়ি
আরো কত কী চলে গেলো কবিতা এলোনা
অফিস এলো
টিফিন এলো
বসন্তের বিকেল এলো
এক দুর্দান্ত ছোঁকড়া, তরুনীকে বাজুতে তুলে বেড়িয়ে গেলো
"ও ইয়ে! ও ইয়ে! কতল করে তেরা বম্ব ফিগার"
রেডিওতে ভালো গান দেওয়ার কথা
কিন্তু হেডফোন আনতে ভুলে গেলেন কবি।





চুনের জল

ক্যাওটিক একটা ডাস্টবিন
ডাস্টবিন কে ক্যাওটিক বলাটা অতিবিররণ
তবু এক একটা পাতা ঝড়ছে
ক্যাওস বলছে দেখো আমি বাড়ছি মাম্মি
ব্রহ্মাণ্ডের সেকি লড়াই
টেবিলে হাতের মুঠো ঠুকে বলছে ওর্ডার! ওর্ডার!
ডাস্টবিন তবু লড়াইয়ে নামছে না
ব্রহ্মাণ্ডের হাত ফেটে রক্ত ছুটছে
ক্যাওস বলছে, আমার সাথে আপোষেই তোমার জয়।

আপনার মতামত জানান