আকাশবার্তা

অভিষেক গুহ রায়


এক অদ্ভুত আবহাওয়ার পূর্বাভাসঃ
নমস্কার!
মহাকাশ থেকে বলছি।
পৃথিবীর উপরকার বায়ুমণ্ডলের ওজোন স্তরের শেষচিহ্নটুকুও মুছে গেছে। ইউভি রশ্মি বাধাবিঘ্নহীনভাবে সরাসরি এসে আঘাত করছে পৃথিবীর বুকে। স্যাটেলাইটের সরাসরি তোলা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, পৃথিবীর ওপরে অনেক জায়গায় সাদা সাদা ছোট বলয়ের মতো ছাপ। ওগুলো আসলে ঘূর্ণিঝড়, বেশ অনেকটা জায়গা নিয়ে হয়ে চলেছে। স্যাটেলাইটের রিপোর্ট অনুযায়ী গত চব্বিশ ঘণ্টায় পৃথিবীতে ২৮০০ র মতো এরকম ঘূর্ণিঝড় দেখা গেছে। বর্তমানে পৃথিবীর তাপমাত্রা আনুমাণিক ৭৫০ ডিগ্রী সেলসিয়াস। আমার সামনে বহু যুগ আগের একটা বিংশ শতকের আবহাওয়ার ম্যাপ খোলা আছে। তাতে স্থলভাগের মাঝে কিছুটা সবুজ রঙ দেখা যাচ্ছে। মনে করতে পারছি, কোনও এক সভ্যতার ধ্বংসাবশেষ উদ্ধারের সময় মিউজিয়াম নামক এক বিশাল সংরক্ষণশালা পাওয়া গেছিল। সেখানে এরকম “গাছ” নামক সবুজ রঙের কিছু নমুনা খুঁজে পাওয়া গেছিল। সামনের দৈত্যাকার মনিটরে দেখা যাচ্ছে, এখনকার পৃথিবীতে পুরোটাই প্রায় জলে ডোবা নীল, আর ছোট ছোট বিন্দুর মতো কিছুটা স্থল...তার রং খয়েরী, মানে মালভূমি। পুরোটাই নিথর, নিস্তব্ধ...প্রাণ বলে কোনও কিছুর অস্তিত্বই নেই। কোনও এককালে নাকি ছিল...
...নাকি কোনও কালেই ছিল না?
......থাকলে পৃথিবীকে এরকম নিষ্প্রাণ করার মুর্খামি করতে পারত কি?
আমি বহুবছর আগে মহাকাশের বুকের অন্তিম স্পেসস্টেশনে রেকর্ড করে রাখা একটা আবহাওয়া বার্তার প্রোগ্রাম।
পুরুষকন্ঠ না নারীকন্ঠ জানিনা...শুধু জানি এক স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থায় এই প্রোগ্রামে কয়েক সহস্রবার আগামী দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাসের বন্দোবস্ত করে রাখা হয়েছিল।
...আজ আমার শেষ বার্তা।
নমস্কার!

আপনার মতামত জানান