সফরনামা ...

মধুছন্দা মিত্র ঘোষ
রাফ খাতায় ঝুঁকে থাকা মরসুমি মজলিস ... আর আমি সেই বেবাক মজলিসের দিকে টানটান ... বেলা গড়ায় ... হাতবদল হয় কৌতূহলী চর্চা ... দিন থেকে রাতে ... ভিন্ন প্রাপ্তবয়স্কতায় কিছু বায়নাক্কা ... কিছু কিছু দৃশ্যরা বিছিয়ে থাকে নিয়মমাফিক ... লতাগুল্মময় দীর্ঘায়ু মাতামাতি ...
অথচ আমার সামনে খুলে খুলে পড়ছে অসম্ভব এক সফরনামা ...
হাত দুয়েক দূরেই কী অপরূপ পরিমিতি বোধে, সব দূরত্ব ঘুচিয়ে সহ্যাদ্রীর নাগাল ... দিগন্ত জুড়ে ছায়ারোদের প্রস্তাবে অবিকল ... চৌকাঠ ডিঙোতেই অনিবার্য শরনার্থী সবজে সুবাস ... যতদূর চোখ যায় তোমারই হাসিমুখ ...
পর্যটন যত সবুজের দিকে গড়ায় ... মৃদুভাষ আলাপ তখন প্রকৃতির সাথে ... পয়মন্ত দে-ছুট পাড়ি নিয়ে এন এইচ ৩ ... সড়কচিন্হ শেখায় কোন দিকে পথ ... ভ্রমণলিপি এক ডাকে খুলে ফেলতেই টুকরো আলোয় কেমন অচেনা ...
অস্ফুট ছুঁয়ে যাচ্ছে পর্যটন ... গাছগাছালির পাতা গলে তির্যক রোদ্দুর ... সেই রোদ কবেকার ... রঙের পাখিরা ঘুরপাক খাচ্ছে ... তারই মাঝে আকাশের ছায়াটুকু ... আবারও ছুঁয়ে ফেলি বিস্তীর্ণ হয়ে থাকা সহ্যাদ্রীর ওই ঠিকানা ... ওই আনমনা সবুজ জেল্লা ...
তোমার সাথে দেখা হয়েছিল যতদূর ... স্পর্শ করি সেই নিরিবিলি ... লাজুক শুশ্রূষায় আঁকিবুঁকি ওই পাহারটিলাও এখন কি ভীষণ অচেনা ... তোমার সাথে কিংবা প্রকৃতির সাথেই গল্পগাছায় পেরিয়ে এসেছি আস্ত একটা দিন ...
লাচ্চা পরোটা - গ্রীন স্যালাড - ডাল মাখানি - কড়াই পনীরের সাথে আমি কোথায় কতটুকু ... অবকাশের আদলে এই তো আরম্ভ অধ্যায় ... মোবাইলে নেট কানেকশন এই আছে তো এই নেই ... শুনশান নীরবতাও থমকে ...
প্রকৃতির সবটুকু বিশ্বাস ওই নাহ্য সড়কনামায় ... ওই প্রাতিভাসিক মজলিস যখন শিশিরে ভিজে চুপ্পুস হবে, আমরাও কী তখন সেই আগামী লগ্নে খানিক ডানা ঝাপটে নেবো ?



আপনার মতামত জানান