স্নানের আগে

চয়ন ভৌমিক
যদি ছুঁড়ে ফেলে দি
যত সাজানো আস্তরন,
ধূলো ঢাকা ফসিল রিপু, ইন্দ্রিয়সুখ
নিয়মের জনাকীর্ণ সকাল।
যদি টান দিয়ে ছিঁড়ি
সব অন্তর্বাস, আড়াল প্রসাধন
আঠা দিয়ে সাঁটা বিজ্ঞাপন মুখ
নগ্ন শরীর আঁকা দুপুর পাঁচিল।
যদি খুলে রেখে দি
সব ছোপ দাগ, ক্লিশে অনুরাগ,
কেউটে খোলসে ঢাকা বিষ-আবরন
প্রতি শঙ্খ সঙ্গমের, নিয়ন বিকেল।
তবে কি নির্লজ্জ বলবে আমাকে?
অনিবার্য রাতে পারবে কি
আগুন জ্বালাতে, কালকূট ঠোঁটে।
যদি না পারো
কুন্ঠিত হয়োনা আমায় নগ্ন দেখে।

ক্ষনিক আয়নায় দেখো নিজেকেও।

হয়তো আমারই মত তুমিও,
বিখন্ড সন্ধ্যায় কবিতয় বারূদের গন্ধ টানবে,
ইচ্ছে রাতের তন্দ্রা আকাশে জ্যোৎস্নার পালঙ্ক ভুলে,
শপথ নেবে নীল শবদেহ ছুঁয়ে।
জেনো-
আমার নির্ভার চাওয়ারা অনিবার্য স্নানে
সেই সময় ঘিরে
তোমার অপেক্ষায় থাকবে।

আপনার মতামত জানান