হালখাতার পাতা

পিনাকী প্রসাদ চক্রবর্তী




বৈশাখের সন্ধ্যায় সে দিন শুনেছি
কোমল গান্ধারের সুর ঝরা পাতায়
আকাশে ছিল সঘনঘন বিদ্যুল্লেখা
শরীরে চকিত বৃষ্টির নরম ছোঁয়ায়
হেঁটেছি মেঘকন্যার হাতে হাত রেখে
জলের ঘ্রাণ নিয়ে সরোবরের পাড়ে


সেই বৈশাখ সেই ঝড়া পাতার মরমি সুর সেই বিদ্যুল্লেখা সেই বৃষ্টিছোঁয়া জলের ঘ্রাণ
আমার সমস্ত প্রত্নখননের পরেও অন্ধত্বকারী সত্যের মতো অবিরাম জ্বলে থাকে সে আপ্রাণ

হালখাতার পাতায় যতবার হিসেব লিখি
জেরে এসে ঠেকে সেই অ-যাপিত জলছবি
যতিহীন ঘুণাক্ষরে মুখবন্ধ হয়ে ওঠে সে-ই

তাই ভেবে দেখেছি অনেক


তোমাকে নিয়ে শুরু করলে
মিডাসের সবই সোনা হবে

তোমাকে দিয়ে শেষ করলে
সিসিফাসের বারবার চূড়োয় ওঠা হবে

আর যদি তুমি এই দু’য়ের মাঝে থাকো
তাহলে কিউপিডের সোনার তীর
বিদ্ধ ক্ষতে আনন্দের উৎস হবে

আপনার মতামত জানান