সেপ্টেম্বর মাসের কবি

দেবব্রত কর বিশ্বাস




১।
ডায়েরি
প্রতিটি অশান্তি থেকে একেকটি লেখা
প্রতিটি লেখা একেকটি অশান্তি

২।
হোম ডেলিভারি
এ রান্নায় সব আছে
এ রান্নায় মা নেই

৩।
দাম্পত্য
প্রবল বজ্রপাতে ঘরবাড়ি কেঁপে ওঠে
ঘরবাড়ি কেঁপে গেলে প্রবল বজ্রপাত হয়

৪।
প্রাক্তন
পুরনো চিহ্নগুলো মুছে দিচ্ছি রোজ
মুছে দেওয়ার চিহ্নগুলো থেকে যাচ্ছে।

৫।
শূন্য
একটা বড় গোল্লা, তার চারপাশে ঘুরছি আমি,
ঘুরতে ঘুরতে নিজেই গোল্লা হয়ে যাচ্ছি।

৬।
সংসার
বয়স বাড়লে ছেলে ছাদ হয়, বাবা দেওয়াল
আর দুইয়ে মিলে গোটা ঘর, তার নাম মা।

৭।
ওষুধ
পাখিদের অঞ্চল জুড়ে জুড়ে
                হাওয়ারা স্থান বদল করে
আমি তার ডানা ধরে ভেসে থাকা
                মৃত সঞ্জীবনী
তুমি ঠিক গাছের মতো
ছায়াদের আগলে রাখো রোদে


পরিচিতিঃ
স্কুলের পাট শেষ করেই কবিতার ক্লাসে ঢুকে পড়েছিলেন। প্রথম কবিতা লেখা স্কুলকে নিয়ে, হায়ার সেকেন্ডারি পাশ করার পরে। প্রথম কবিতা প্রকাশ ২০০৫ সালে কৃত্তিবাস পত্রিকায়। প্রথম কবিতার বই “শ্রী গোপালমল্লিক লেন” ২০১০ সালের বইমেলায় সপ্তর্ষি প্রকাশন থেকে প্রকাশিত। দ্বিতীয় এবং সাম্প্রতিকতম কাব্যগ্রন্থ “ছায়া থেকে অন্ধকার নামে” ২০১৪ সালের বইমেলায় প্রকাশ পেয়েছে। পেশাগত সূত্রে একটি বিজ্ঞাপন সংস্থার কপিরাইটার। কবিতা ছাড়া ভালবাসেন ঘুরে বেড়াতে এবং কাছের কোন বন্ধুর সাথে পুরনো দিনের গল্প করতে।


অলংকরণ- তৌসিফ হক