আমার আপত্তি আছে

সৌরাংশু

 

আমার আপত্তি আছে ধর্মের নামে রাজনীতিতে । কিন্তু স্বাধীনতার প্রায় সত্তর বছর পরেও সংখ্যালঘু সম্প্রদায় এবং তফসিলি জাতি উপজাতিদের জন্য সংরক্ষণ করতে হচ্ছে বলেও আমার আপত্তি আছে। সংরক্ষণের নামে বিভেদ না বাড়িয়ে পিছিয়ে পড়া জাতি উপজাতিদের উন্নয়নের দিকে একটু নজর দিতে পারলে বোধহয় আমার আপত্তি থাকত না।

আমার আপত্তি আছে আপাত বামপন্থার নামে ১.৬ টন এসির সুমেদুর হাওয়ায় চামড়ায় মোড়া সোফায় বসে আলোআঁধারির খেলায় সিভ্যাস রিগালের পেয়ালায় সুর তুলে এনআরআইদের কম্যুনিজম চর্চাতে। হিন্দুত্ব-র মতই কম্যুনিজম একটি জীবনধারা! কতগুলি বস্তাপচা ধ্যানধারণাকে শুধুমাত্র সপ্তাহান্তের আড্ডায় তুলে এনে ঝুল ঝেড়ে টেবিলে সাজিয়ে গুছিয়ে আবার কুলুঙ্গীতে তুলে রাখার নাম কম্যুনিজম নয়।

আমার আপত্তি আছে আপাত ধর্মনিরপেক্ষতার মুখোশে ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতিতেও। ৯২-এর মুখ এবং মুখোশগুলো আমি প্রত্যক্ষ করেছি- বিরক্তি লেগেছে- ভয় পাই নি! তাই টিনএজের শেষ বছরগুলিতে অশান্ত সময়েও রাজাবাজার মেটিয়াবুরুজের ভিতর দিয়ে হেঁটে যেতে গিয়ে শুধু করুণা হয়েছে- বিরক্তি এসেছে যে এই নরকের উন্নতির কথা কেউ ভাবে না খালি "আমরা ওরা"-র রাজনীতিতে দুর্দশাকে জিইয়ে রাখে।

আমার আপত্তি আছে ধর্মের জিগির তুলে মানুষ কাটাতেও- আমার আপত্তি আছে বিজাতীয় ধ্যান ধারণায় নির্বিচারে মানব মৃত্যুর সাফাই দেওয়াতেও- আমার আপত্তি আছে জাত, ধর্ম, জন্মস্থান, ভাষা, শিক্ষা, সংস্কৃতির নামে ভেদাভেদ সৃষ্টি করে রাখাতেও- আমার আপত্তি আছে চোখ কান নাক বুঝে শুধুমাত্র উপরওয়ালার নির্দেশকেই শিরোধার্য করে বেঁচে থাকাতেও- আমার আপত্তি আছে আগে থেকেই 'আগুন আগুন' বলে চিৎকার করে সম্ভাবনার বিনাশকেও- আমার আপত্তি আছে ক্ষমতার কেন্দ্রীকরণে- আমার আপত্তি আছে দায় অস্বীকারেও- আমার আপত্তি আছে দায়বদ্ধহীনতাকেও- আমার আপত্তি আছে স্পেকুলেশন সর্বস্ব প্রতিক্রিয়াশীল রাজনীতিতেও- আমার আপত্তি আছে পুঁজিবাদের আপাত বিরোধিতা করে তলে তলে পুঁজিবাদের ছত্রছায়াতেই নিজের পেটের সংস্থান করাকেও- আমার আপত্তি আছে বিরোধিতাকে দলীয় লেবেল লাগিয়ে দেওয়াকেও!

তা আমি তো একজন সাধারণ নাগরিক মাত্র। আমার আপত্তি নিয়ে আর আপনি/ তোমরা/ তোরা কি করবেন/করবে/করবি? দেশটা তো সত্যিই আমাদের দেশ নয়! আমরা শুধু সুবিধামতো দেশের নামটা পাসপোর্টে ব্যবহার করে স্বপ্ন দেখতে রাজি থাকি। নিজস্ব স্বপ্ন। একান্ত স্বার্থপর স্বপ্ন।

ভুলে যাই দেশ যতক্ষণ না সামগ্রিকভাবে এগোচ্ছে ততক্ষণ ব্যক্তির বিকাশ ঘটে না। যাই হোক না কেন ভুল ঠিক নিয়েই মানুষ এগিয়ে চলে। এগিয়ে চলে সবাইকে নিয়েই! স্বপ্ন আমিও দেখি- আমি দেখি যে ভবিষ্যতে এই সব আপত্তিগুলি মুছে গিয়ে আমরা ভারতবাসীরা বিভিন্নতাকে নিয়েই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমাদের উচ্চতা বাড়িয়ে নিয়ে চলেছি। তা আমার স্বপ্ন নিয়েই বা কি হবে? দেশ যেমন তার নিজের মতই চলে তেমনই চলবে। সকলেই তাদের নিজস্বতা নিয়েই বেঁচে থাকি। আপত্তিগুলোকে নিয়েও। আপনাদের আপত্তি থাকলেও...

আপনার মতামত জানান