চারটে পুনরাধুনিক কবিতা

অনুপম মুখোপাধ্যায়

 




গৃহস্থী



সকল। ভালোবাসা ফেলে
বাড়ি হয়ে আছে

সমস্ত জায়গায় ফুল ইট
সামনে। লম্বাআআআআআ হয়ে
পড়েছে তার পুড়ে ছাই ইট ফুল

তোমার। মেয়ে তোমাকে বলছে
ছেলে হওয়ার দুঃখ

দমকল থেকে
পড়ে যাওয়ার দুঃখ

আগুন ছাড়াই

নূপুর থেকে
কাদা ধুয়ে নিচ্ছে



সে


জাহাজ থেকে ১টা অনুপম নেমেছে
এই গুণ। কি। জাহাজের

তাকে। কেউ
ব্যাখ্যা করতে পারেনা

তোমাদের বিচ্ছিরি কাউন্সেলিং-এর সে
প্রচ্ছন্ন। সে

মৃৎপ্রদীপের চেয়ে
বিপুউউউউউউল
ঝাঁপিয়ে পড়া সে

পুষ্পেন্দু দোলই। থেকে
অসিত কুমার সেন অবধি। সে

বেগুনি নীল আকাশী
সবুজ হলুদ কমলা
লাল পাথরের গুহায়। গাঁইতির
ঘা পড়ছে

লাল ধুলো উড়ছে

শুধুই। সে- র। লাল
ধুলো উড়ছে

এই। দোষ কি
জাহাজের








স্পাআর্টাআআআআআ


আলো। মাই স্তন। ১টা প্লেন। তার ছায়া
নিয়ে ঢুকে যাচ্ছে
মাটির পেছনে

মাটি। ওই হাঁফাচ্ছে
প্লেন হতে চাইছে

নিতম্বিনী। কাকে বলে

নিতম্বটা কী

স্পার্টা। তার
পুরো কাহিনি বাহিনী নিয়ে
বেরিয়ে আসছে
মাটি সামনে রেখে





ডেঁয়ো


এই। যেমন
পিঁপড়ে ১ তলস্তয় হয়

ভারতীয় লাল
কালো
রাশিয়ান ডেঁয়ো

মাছের লোভে
রয়ে যাচ্ছে জল
ছিঃ ছিঃ

ধীরে ধীরে
হুল বাগিয়ে
বয়ে যাচ্ছে জল

খাবারের ঘা খেয়ে
ছিটকে যাচ্ছে
মাছ



আপনার মতামত জানান